1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : raihan :
  3. [email protected] : sanowar :
  4. [email protected] : themesbazar :
ভূমি অফিসের ১৫০-২০০ বছরের নথি পুড়িয়েছে নাশকতাকারীরা - Prothom News
সোমবার, ১৯ এপ্রিল ২০২১, ০২:২২ অপরাহ্ন

ভূমি অফিসের ১৫০-২০০ বছরের নথি পুড়িয়েছে নাশকতাকারীরা

  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ১ এপ্রিল, ২০২১
  • ৩৮ বার
Print Friendly, PDF & Email

প্রথম নিউজ ডেস্ক:

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফর এবং হরতালকে কেন্দ্র করে গত ২৬ থেকে ২৮ মার্চ ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় হেফাজত ইসলামের নেতাকর্মীরা চালিয়েছে। সরকারি ও রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠান হামলা চালানো হয়েছে। ভূমি অফিসের ১৫০-২০০ বছরের নথি পুড়িয়ে দেয়া হয়েছে। এতে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার মানুষ ৫০ বছর পিছিয়ে গেছে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ক্ষতিগ্রস্ত বিভিন্ন স্থাপনা পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে ইন্সপেক্টর জেনারেল অব পুলিশ (আইজিপি) ড. বেনজির আহমেদ এসব কথা বলেন।বিভিন্ন স্থাপনা পরিদর্শন শেষে ক্ষতিগ্রস্ত প্রতিষ্ঠানকে আর্থিক সহায়তা প্রদান করেন আইজিপি।

বৃহস্পতিবার দুপুরে ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেস ক্লাব এবং সার্কিট হাউসে পৃথক মতবিনিময় সভায় তিনি বলেন, যারা এ ধরনের কার্যক্রমের সঙ্গে জড়িততাদের সবাইকে চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনা হবে।

আইজিপি ড. বেনজির আহমেদ বলেন, ব্রহ্মনবাড়িয়ায় ৩২ লাখ লোক বসবাস করে শহরে। তারা তাদের সন্তানদের দিনে শিক্ষা দেওয়ার জন্য মাদ্রাসা করেছে। ওই মাদ্রাসাগুলোতে ১৩ হাজার ছাত্র লেখাপড়া করছে। তাদের প্রতিদিন এক কোটি টাকা খরচ হয়। এ টাকার যোগান ব্রাহ্মণবাড়িয়াবাসী। ভূমি অফিস ও রেকর্ডরুম আগুনে পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। সরকারি ও রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠান হামলা চালানো হয়েছে। এর ক্ষতি আগামী ৫০ বছর ব্রাহ্মণবাড়িয়াবাসীকে বহন করতে হবে।

গত ২৬ ও ২৭ মার্চ ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় হামলা ও সরকারি স্থাপনায় ভাংচুর করে হেফাজতে ইসলামের কর্মীরা। এ সময় পুলিশের সঙ্গে তাদের সংঘর্ষে কমপক্ষে ১০ জন নিহত হয়েছেন। কেন এই হামলা? এমন প্রশ্নের উত্তরে আইজিপি বলেন, যেসব জায়গায় হামলা চালানো হয়েছে সবগুলোই রাষ্ট্রীয় সম্পদ তথা জনগণের সম্পদ। জনগণের সম্পদে কেউ কেনইবা এভাবে বিনষ্ট করবে তা আমার বোধগম্য নয়। সার্কিট হাউজে হামলা হয়েছে, ভূমি অফিসে হামলা হয়েছে। ভূমি অফিসের ১৫০-২০০ বছরের নথি নাশকতাকারীরা পুড়িয়েছে যা ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় লোকজনকে আরও ৫০ বছর ভোগাবে।

আইজিপি বলেন, এই জেলায় জেলায় ৩২ লাখ বাস করে, ৫৭৪টি মাদ্রাসা রয়েছে। সবাই পরকালের জন্য এসব মাদ্রাসায় দান-সদকা করে এগুলোকে পরিচালনা করে। অথচ এসব মাদ্রাসার কোমলতি ছাত্রদের নাশকতার কাজে ব্যবহার করা হচ্ছে। হামলার ধরণ দেখে এটা স্পষ্ট যে দেশের উন্নয়ন ব্যহত করার জন্য এই হামলা।

এসময় র‌্যাব মহাপরিচালক চৌধুরী আবদুল্লাহ আল মামুন, এসবির প্রধান মনিরুল ইসলাম, চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি আনোয়ার হোসেন, পুলিশের ডিআইজি অপারেশন খুরশিদ হোসেন, ডিআইজি হায়দার আলী খানসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

নিউজটি শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর...

ফেসবুকে আমরা…

© All rights reserved © 2020, prothomnews.com.bd